বিসর্জ্জনে ঘুম

বিসর্জ্জনে ঘুম

তিনশো চৌষট্টিতম ঘুম বিসর্জ্জনের রাতেও

তুমি এলে,মস্তিষ্কের শিরায় শিরায় জানান দিয়ে!

ঠিক তিনশো চৌষট্টি দিন,

ছেড়ে দিলাম তোমায় কিনবা উল্টো করে তুমি আমায়,

আসলে দুজনেই দুজনকে ছেড়ে দিলাম।

যখন চোখের মুগ্ধতায় জমে গেছে নিত্য অভ্যস্ততা,

তারপর ও বেশ কিছুদিন টেনে গিয়েছি আমরা আমাদের,

তারপর আর কাটতেই চাইতো না,

রাজ্যের ঘুম জমেছিলো চোখে, ইথারে ভাষাহীন সময়!

ফেলাফেলি যখন চুড়ান্ত,

একদিন ঠিক ছাতিমের তলে নারকেল পাতার আংটিটা ফেরত দিয়ে পিছনে ফিরে তাকাইনি কেউ!

সেই থেকে আজ নিয়ে তিনশো চৌষট্টি দিন,

তোমাকে বিসর্জ্জনের সাথে বিসর্জ্জিত হলো ঘুম,

তুমি ফিরে না গিয়ে গেঁথে গেলে মগজে, শিরায় শিরায়।

আমার ঘুম বিসর্জ্জন কিনবা বিসর্জ্জনের ঘুমে

তুমি বসতি করে নিয়ে জানিয়ে দিলে

প্রেমিকারা কখনও ছেড়ে যায় না।

প্রেমিকা মাত্র অবিনশ্বর হয়!

প্রতীকী ছবি

নূর নাহার তৃপ্তি

নূর নাহার তৃপ্তি


Place your ads here!

Related Articles

বই মেলার রহস্য

বই মেলার রহস্য পড়বো বই মজা করে, হাজার টাকার নোট দরে । আবারো বাহির নতুন বই । পড়তে বসলে হইচই

আমাদের এই ছোট গ্রাম

আমাদের এই ছোট গ্রাম লক্ষ্মণ ভাণ্ডারী (নবাগত কবি) আমাদের ছোট গাঁয়ে আছে ছোট ছোট মাটির বাড়ি, গাঁয়ের পথে পুকুরপাড়ে আছে

আমার প্রিয় শহর

জমে গেছি ! এখন আর আকাশ দেখি না এখন আর পাখি দেখি না না চাঁদ, না জোঁনাকি, না তাঁরা ভরা

1 comment

Write a comment
  1. Nasim
    Nasim 11 August, 2019, 09:00

    Congratulations bondhu ! Khub valo lagllo

    Reply this comment

Write a Comment