আমার দেশ ও বন্যা

আমার দেশ ও বন্যা

দেশ ও তার মানুষ যখন চরম বিপর্যয়ের মাঝে, কি করছি আমরা তখন? ২০০ বছরের মধ্যে নাকি ভয়াবহ বন্যা হতে চলেছে এ বছর! ১৯৮৮ সালের কথা ভাবলে এখনও ভয়ে গা শিওড়ে ওঠে… নিজের চোখে দেখা সেসব সত্য ঘটনা যা কিনা বেচে থাকা ভুক্তভোগীদের post trauma হবার জন্য যথেষ্ট !! আর এবারেরটা!!?? এটা নাকী আরও ভয়ন্কর!! মাত্র কদিনেই যে অবস্থা দেখছি দেশের … কি হতে যাচ্ছে সামনে? আর আমরাই বা এ ব্যাপারে কতটুকু সচেতন? দেশ ভেসে যাচ্ছে বানের পানিতে অথচ আমরা কি করছি? নিজেদের সময় থেকে কতটুকু সময় ব্যয় করছি ওদের জন্য ? সারাদিনে কয়েকবার করে যখন গাদা গাদা খাবার নিয়ে বসি, তখন একবারও কি ভাবছি ওরা কি খাচ্ছে? যখন একেক সময় একেক রং আর ডিজাইন এর কাপড় পড়ে বাইরে যাচ্ছি, কখনও কি ভাবছি ওরা কি পড়ছে? আরামে ব্ল্যাংকেট গায়ে জড়িয়ে ঘুমাচ্ছি, সাথে হিটার… আর ওরা? গাড়ি হাকিয়ে যখন লং ড্রাইভে যাচ্ছি ওরা তখন নৌকায় অথবা সাতড়িয়ে একটু আশ্রয় খুজে বেড়াচ্ছে!! এই আমাদের মমত্ববোধ? মনুষ্যত্ব আর দেশপ্রেম?

একটু খানি ভাবলেইতো চোখের পানিতে এখানেও বন্যা হয়ে যায় আর সেইসব ছবিগুলি দেখছি কিভাবে? জানি অনেকেই সাহায্যের জন্য হাত বাড়িয়ে আছেন, নানান ভাবে সাহায্যও করছেন, কিন্তু তবুও ভাবছি আরও কি অনেক বেশী করা দরকার না আমাদের? চারপাশের থৈ থৈ করা পানির সাগর কিন্তু খাবার জন্য ওরা এক ফোটাও পানি পাচ্ছেনা…দেখে কি মনে পড়েনা Samuel Taylor Coleridge এর সেই লাইন গুলি…? water water everywhere but not any drop to drink….! অথচ ১ টা সাহায্য, একটুখানি সহমর্মিতা, একটু প্রার্থনা ….মিলে মিলে কিন্তু এত্ত বেশী হয়ে যায় যে চাইলে তা দিয়ে পুরা বিশ্বের সমস্যা দূর করা যায় আর আমার দেশ বাংলাদেশতো ছোট্ট একটা দেশ!! যে যেখানেই আছি আর যেমনটাই থাকি না কেন, চলুন না ওদের পাশে গিয়ে দাড়াই, সেটা শারিরীক বা মানসিক যেভাবেই হোক না কেন….ওদের যে বড় কষ্টের সময় যাচ্ছে…অনেক কষ্ট!! দূরে কিম্বা কাছে, কোন ব্যাপার না কিন্তু, সাহায্য করার ইচ্ছাটাই হচ্ছে সবচেয়ে বড় কথা…যে কোন ভাবেই হোক বাচাতে হবে সেই মানুষগুলিকে, দেখাতে হবে আশার আলো, জ্বালাতে হবে তাদের ডুবে যাওয়া প্রদীপের শিখা, শেখাতে হবে বিপদ মোকাবেলা করার উপায় আর দিতে হবে সামনে আগানোর প্রেরনা…আর এভাবেই বাচাতে হবে আমার দেশ বাংলাদেশকে!!

Dr Naila Aziz Meeta

Dr Naila Aziz Meeta

Home town is Bangladesh, live in Australia. Love to write, read, travel, and listening to music.


Place your ads here!

Related Articles

ক্যানবেরায় দুর্গোৎসব হোক নতুন প্রজন্মের স্বার্থে

অজয় কর: বাঙালী হিন্দুদের সবচাইতে বড় ধর্মীয় উৎসব হচ্ছে ‘দুর্গোৎসব’। গতবারের মতো এবারেও ক্যানবেরায় বাংলাদেশী হিন্দুদের সংঠন ‘বাংলাদেশ-অষ্ট্রেলিয়া পুজা এসোসিয়েশন

বৈচিত্রতার সৌন্দর্য: পাহাড়িদের জন্য ভাবনা

১৯৪৭ সালে যখন দ্বিতীয়বারের মতন বাংলা যখন ভাগ হল তখন অনেকেই আজকের বাংলাদেশ ছেড়ে পশ্চিমবঙ্গে চলে যায়। বিশেষ করে শিক্ষিত,

Article on Caretaker Government

তত্ত্বাবধায়ক সরকার , আসলে কি অবৈধ দম্পত্তির বৈধ সন্তান – ১. লেখালেখি আমার তেমন কোন নেশা ও নয়, আবার পেশাও

No comments

Write a comment
No Comments Yet! You can be first to comment this post!

Write a Comment