অস্ট্রেলিয়া আওয়ামী লীগের ৭ই মার্চের ভাষণ আলোচনা

অস্ট্রেলিয়া আওয়ামী লীগের ৭ই মার্চের ভাষণ আলোচনা

সিডনিতে বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণের আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি অর্জন ও বিজয় দিবসের প্রাক্কালে সাংবাদিকদের সাথে অস্ট্রেলিয়া আওয়ামী লীগের মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত।

গত ৩রা ডিসেম্বর ২০১৭ সিডনির একটি রেস্তোরায় অস্ট্রেলিয়া আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে সাংবাদিকদের সাথে মত বিনিময় সভার আয়োজন করা হয়। সভার শুরুতেই শ্রদ্ধার সাথে স্বাংলাদেশের স্থপতি, জাতির জনক এবং হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধে শহীদ ত্রিশ লক্ষ শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে দাঁড়িয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়। সভার শুরুতে সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক ড. আবুল হাসনাৎ মিল্টন তার সূচনা বক্তব্যে বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব উনিশশো একাত্তরের সাতই মার্চ ঢাকার রেসকোর্স ময়দানে যে ঐতিহাসিক ভাষণটি প্রদান করেছিলেন, ইতিমধ্য যা বিশ্বের অন্যতম শ্রেষ্ঠ রাজনৈতিক ভাষণ হিসেবে স্বীকৃতি লাভ করেছে, আপনারা জানেন সম্প্রতি ইউনেস্কোও সেই ভাষণটিকে বিশ্ব ঐতিহ্যের অংশ (world documentary heritage) হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছে। যে ভাষণটি বাঙালিকে স্বাধীনতার লক্ষ্যে চুড়ান্তভাবে উজ্জীবিত করেছিল, যে ভাষণটির পরতে পরতে মিশে আছে বঙ্গবন্ধুর রাজনৈতিক মুন্সিয়ানা, সেই ভাষণটির আন্তর্জাতিক স্বীকৃতির এই মাহেন্দ্রক্ষণে আমরাও গর্বিত এবং অস্ট্রেলিয়া আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে আপনাদের মাধ্যমে অস্ট্রেলিয়া বিশ্ববাসী সকল বাঙালির সাথে এই আনন্দ, এই অহংকারটুকু ভাগ করে নিচ্ছি। বঙ্গবন্ধুর ভাষণের এই আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি বঙ্গবন্ধুর আদর্শের একজন সামান্য কর্মী হিসেবে তাঁর আদর্শ বাস্তবায়নে আমাদের আরো বেশী অনুপ্রাণিত করবে বলেই আমাদের দৃঢ় বিশ্বাস। বঙ্গবন্ধু কন্যা, জননেত্রী শোখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের চলমান উন্নয়নযাত্রায় প্রবাসী বাঙালি হিসেবে আমরাও কার্যকর ভূমিকা রাখতে চাই।’ সভায় উপস্থিত সাংবাদিকদের আরো জানানো হয় যে বাংলাদেশের একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধের বিজয়কে উদযাপন করবার লক্ষ্যে আগামী ১৬ ডিসেম্বর রকডেলের বনলতা রেস্টুরেন্টের ফাংশন সেন্টারে অস্ট্রেলিয়া আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে এক আলোচনা সভা ও মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। উক্ত অনুষ্ঠানে সিডনির সকল বাঙালিকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে।

মত বিনিময় সভায় সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন অস্ট্রেলিয়া আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ। মত বিনিময় সভায় যোগ দেবার জন্য উপস্থিত সকল সাংবাদিককে অস্ট্রেলিয়া আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে ধন্যবাদ জানানো হয়। আগামীতেও নানাবিধ সামাজিক-রাজনৈতিক কর্মকান্ডে বরাবরের মতই সাংবাদিকদের সহযোগিতাও কামনা করা হয়। আমাদের বারবার দেখা হবে। আপনারা ভাল থাকবেন। সভাশেষে সকলে এক প্রীতি নৈশভোজে অংশগ্রহন করেন। সভায় সাংবাদিক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এসবিএস বাংলা রেডিও-র চীফ আবু রেজা আরেফীন, দেশ বিদেশ পত্রিকার সম্পাদক বদরুল আলম, বাংলা-বার্তা পত্রিকার সম্পাদক আসলাম মোল্লা, বিদেশ বাংলা টিভি’র চীফ রহমতুল্লাহ, মুক্তমঞ্চ পত্রিকার সম্পাদক নোমান শামিম, স্বাধীন কন্ঠ পত্রিকা ও বাংলা কথা অনলাইন পত্রিকার সম্পাদক আব্দুল আউয়াল, যমুনা টিভি’র হাসান তারিক, এনটিভি’র চঞ্চল চৌধুরী, চ্যানেল আই টিভি’র আসওয়াদ বাবু, সময় টিভি’র আমিনুল ইসলাম রুবেল, নবধারা অনলাইন পত্রিকার সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ খোকন, সিডনিবাসী বাংলা অনলাইন পত্রিকার সম্পাদক আব্দুল মতিন। অস্ট্রেলিয়া আওয়ামী লীগের পক্ষে মত বিনিময় সভায় অংশগ্রহণ করেন সংগঠনের সভাপতি ড. আব্দুর রাজ্জাক, সহ-সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা এনায়েতুর রহিম বেলাল, মো: শাহে আলম, এমদাদ হক, হারুনুর রশীদ, ফয়সাল মতিন, আলাউদ্দিন অলোক, জুয়েল তালুকদার, ড. মইনুল হক পাভেল, সাইফুল ইসলাম, জাকির হোসেন প্রধানীয়া, মুইদুর রহমান নবীন, জামির আহমেদ, মহিউদ্দিন মহি, ওমর ফারুক পলাশসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।


Place your ads here!

Related Articles

বার্ষিক সাধারন সভা:বাংলাদেশ সোসাইটি অব সিডনি (বি ডি এস এস)

আফসানা বিলকিস প্রীতি: বাংলাদেশ সোসাইটি অব সিডনি(বি ডি এস এস)এর ১০ম বার্ষিক সাধারন সভা গত ৩১শে সেপ্টেম্বর , ২০১৪ রবিবার

Auckland Bangladeshi Community Mourn for Bangabandhu on National Mourning Day, 2009.

The Bengali community in a big gathering in Auckland, New Zealand appealed governments of Bangladesh to complete the final process

সিডনিবাসী বাংলাদেশীদের সাথে শিকড়ের সেতুবন্ধন

“বিশ্বায়নে শহীদ মিনার” গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের অধীনস্থ গণগ্রন্থাগার অধিদপ্তর সুফিয়া কামাল জাতীয় গ্রন্থাগারসহ প্রত্যেকটি জেলার সরকারী লাইব্রেরীসমূহে সিডনিতে

No comments

Write a comment
No Comments Yet! You can be first to comment this post!

Write a Comment