গজল সন্ধ্যা – প্রেম ও ভক্তির অপূর্ব মিলন

গজল সন্ধ্যা – প্রেম ও ভক্তির অপূর্ব মিলন

গজল হচ্ছে হালকা মেজাজের লঘু শাস্ত্রীয় সঙ্গীত। এটাকে আবার হালকা-গম্ভীর রসের মিশ্রণে সিক্ত আধ্যাত্মিক গান ও বলা হয়ে থাকে। ‘গজল’ শব্দের আক্ষরিক অর্থ প্রেমিক-প্রেমিকার কথোপকথন। তাই গজল গানকে প্রণয়সঙ্গীতও বলা হয়। তবে গজল প্রেমিক-প্রেমিকার গান হলেও এ গান এমন একটি শৈলী যাতে প্রেম ও ভক্তির অপূর্ব মিলন ঘটে এবং শ্রোতার মনকে আন্দোলিত করে তোলে। পার্থিব প্রেমের পাশাপাশি গজল গানে পাওয়া যায় অপার্থিব প্রেম, যে প্রেমে স্রষ্টার প্রতি আত্মার আকূতি নিবেদিত‌ হতে দেখা যায়।

মনের প্রশান্তির জন্য আমরা বিভিন্ন ভাবে আমাদের পছন্দের বিষয়বস্তু ও মানুষজনকে সাথে করে আমাদের অবসরকে সঙ্গী করে সময় কাটাতে ভালোবাসি। যেমন :- কেউ বেড়াতে, কেউ গল্প করতে, কেও বা গল্পের বই পড়তে, কেউ পরিবার নিয়ে সময় কাটাতে, কেউ ধর্মকে আলিঙ্গন করে, কেউ ছবি এঁকে, কেউ ছবি তোলে, কেউ রান্না করে, কেউ পড়াশোনা করে, কেউ কাজকর্ম করে, কেউ গান গেয়ে, কেউ গান শুনে, কেউ বা সম্পূর্ণ একা থেকে ইত্যাদি !

আসলে সুখ- আনন্দ ছড়িয়ে ছিটিয়ে আছে আমাদের আশেপাশেই! শুধু একটু কষ্ট করে খুঁজে নিতে হয়। যদিও প্রবাস জীবনে অবসর পাওয়া খুবই কঠিন তবুও মনে প্রবল ইচ্ছে থাকলে সে সময়টিও বের করা সম্ভবপর হয়। পরিবার ও‌ বন্ধুবান্ধব নিয়ে সময় কাটানোর মুহূর্তগুলোই সবচাইতে বেশি আনন্দের বলে আমার মনে হয় আর সেই মুহূর্তগুলিতে আমরা যা’ই করি না কেন সময় গুলো খুব সুন্দর ভাবে কেটে যায়।
এই বিদেশে বসে আত্মীয় পরিজনের সান্নিধ্য পাওয়া খুবই কষ্টকর কিন্তু এর মাঝে যদি আত্মীয় সমতুল্য বন্ধু বান্ধব এর ভালোবাসা পাওয়া যায় তাহলে সেটি একটি আশীর্বাদের মতোই হয়ে ওঠে।

এরকমই এক ছুটির দিনে আমন্ত্রণ পেলাম খুব প্রিয় বন্ধু বন্দিতা ও মিঠুন এর। চমৎকার মনের অধিকারী এই যুগল তাদের পরিবার নিয়ে ব্রিজবেনে বসবাস করছেন অনেক দিন যাবত। ওরা দুজনেই পেশাগত কাজের পাশাপাশি সংগীতের প্রতি ভীষণ রকম অনুরাগী। ওদের ছোট ছোট দুটো মেয়ে মিষ্টি ও রাই। ওরাও স্কুলে পড়াশুনার পাশাপাশি গান বাজনাতে দারুন ভাবে পারদর্শী। ‌শুধু গান-বাজনা বললে ভুল হবে, সাংস্কৃতিক পরিমণ্ডল বলতে যেটি বোঝায় ওদের কাছে গেলে সেটিই বোঝা যায় । ঘরে বাইরে চারিদিকে ওদের সংস্কৃতির ছোঁয়া। ‌

বন্দিতা মিঠুন নিজেরা Sargam Music Academy নামে একটি সাংস্কৃতিক organisation তৈরি করেছে যেখানে ওরা দেশি-বিদেশি বিভিন্ন শিশু ও বড়দের মিউজিক এর উপর শিক্ষা দিয়ে থাকে। পড়াশোনা, কাজকর্ম, ধর্ম সবকিছু সুন্দরভাবে করে দেশী ও বিদেশী সংস্কৃতিকে নিজেরা যেমন সুন্দরভাবে পালন করে চলছে তেমনি অন্যদেরকেও সেই শিক্ষা দিয়ে পারদর্শী করে তুলছে।

বন্দিতা ও তার পরিবার খুব ভালো করে জানে আমি সুন্দর সুন্দর গান শুনতে ভালবাসি। তাই একদিন আমাকে জানালো একজন খুব ভালো শিল্পীর কথা যিনি আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে সুদূর ইন্ডিয়া থেকে এসেছেন অস্ট্রেলিয়াতে এবং জানতে চাইলো আমরা ওনার গান শুনতে আগ্রহী কিনা। উনি মূলত: গজল পরিবেশন করেন। সত্যি কথা বলতে কি আমি ওনার গান আগে কখনো শুনিনি, তাই কিছুক্ষণের জন্য বুঝতে পারছিলাম না যাব কি যাব না কারণ এত ব্যস্ত সময়ের ভেতর সময় বের করা কঠিন। কিন্তু পরক্ষণে ভাবলাম এরা যখন বলছে নিশ্চয়ই স্পেশাল কেও হবে এবং খুব ভালো গান করেন।‌

ওস্তাদজীর নাম Ustad Ghulam Abbas Khan. তিনি একজন স্বনামধন্য আন্তর্জাতিক হিন্দুস্তানি ক্লাসিক্যাল ও গজল শিল্পী। তিনি classical and Ghazal উভয় সঙ্গীতেই সমানভাবে পারদর্শী। He belongs to the prestigious family of Hindustani Classical Vocalists, the Rampur Sahaswan Gharana that owes its allegiance to the tradition of Mia Tansen.

ওস্তাদজির আরও পরিচয় হচ্ছে তিনি Late Ustad Mushtaq Husain Khan Sahab এর নাতি, যিনি সর্বপ্রথম the Padma Bhushan Award (In Hindustani Classical Vocal Category) পেয়েছিলেন.

ওস্তাদজি তার শিক্ষা গ্রহণ করেছেন তার পিতা Late Ustad Ghulam Sadiq Khan Sahab (Padma Shri Awardee) এর কাছ থেকে যিনি একজন আন্তর্জাতিক ক্লাসিক্যাল শিল্পী এবং ওস্তাদ।

যথারীতি সেই সন্ধ্যা এলো, অনুষ্ঠান শুরু হলো…. বন্দিতার চমৎকার উপস্থাপনার ভেতর দিয়ে অনুষ্ঠানের প্রারম্ভ ।অনুষ্ঠানের শুরুটা তারা তাদের পুরোহিত 𝐒𝐰𝐚𝐦𝐢 𝐣𝐢 কে দিয়ে ওদের নিয়ম অনুযায়ী শুরু করলো। তারপর পরিচিতি পর্ব ! একটি কথা না বললেই নয়, যেটি খুবই মনে রাখার মত তা হলো, ওস্তাদজির নম্রতা, ভদ্রতা এবং বিনয়ী ব্যবহার এত চমৎকার যা কিনা মনে রাখবার মত। গান শুনবার পর এত বড় একজন শিল্পী যখন বুঝতে পারলাম তখন শুধু মনে হল কিভাবে ওনি এতটা নিরহংকার এবং down to earth!!

প্রোগ্রামটির নাম “Ek Shaam Ghazal Ke Naam”. প্রোগ্রামটি যারা প্রেজেন্ট করেছেন তাঁরা হলেন:-

Sargam Music Academy, Grand Starlight Events and Alchemy Events and Co on the 3rd of March 2024 at the Coorparoo Secondary College, Brisbane.

বাদ্যযন্ত্রে যারা ছিলেন:-
Wilson Allu bhai on guitar ,Sidharth Gurnal bhai on keyboard and Wahid bhai on tabla for playing live with Ustaad ji

একে একে বেশ কিছু গান উনি পরিবেশ করলেন। নির্ধারিত সময় শেষ হবার পরেও দর্শকদের অনুরোধে আরো অনেকক্ষণ বেশি গাইলেন। নিজের তৈরি করা গজল ছাড়াও ওস্তাদ জ্বি অন্যান্য শিল্পীদের যেমন Late Pankaj Uddas ji , Late Lata Mangeshkar Ji , ওনাদের গানও পরিবেশন করলেন। এরপর কিছুক্ষণ ফটো সেশন এরপর যথারীতি ধন্যবাদ জ্ঞাপন দিয়ে পুরোটা প্রোগ্রাম শেষ হলো। শেষ হয়ে যাওয়ার পরেও কিছুক্ষণ ঘোরের মতো ছিলাম ! মনে হচ্ছিলো আরো আরো গান শুনি…..

ধন্যবাদ বন্দিতা ও মিঠুন চমৎকার এই আয়োজনে আমাদেরকে মনে করবার জন্য। ‌ তোমাদের জন্য আমাদের অনেক অনেক শুভেচ্ছা ও প্রার্থনা।

গজল সন্ধ্যা – প্রেম ও ভক্তির অপূর্ব মিলন
নায়লা আজীজ মিতা

Dr Naila Aziz Meeta

Dr Naila Aziz Meeta

Home town is Bangladesh, live in Australia. Love to write, read, travel, and listening to music.


Place your ads here!

Related Articles

ভাষা সংগ্রামীদের শ্রদ্ধা জানাল ক্যাম্বেলটাউন বাংলা স্কুল।

আমরা ছাড়া কে পেরেছে মায়ের ভাষাকে এমন করে ভালবাসতে। আমরা ছাড়া কে পেরেছে ভাষার জন্য প্রাণ বিলিয়ে দিতে। মাতৃভাষার মর্যাদা

নূরজাহান বেগমকে শ্রদ্ধাঞ্জলি

২৩ মে ২০১৬ আমাদের ছেড়ে চলে গেলেন বাংলাদেশের কৃতি নারী, সাংবাদিকতার পথিকৃৎ, সাহিত্যিক এবং ভারত উপমহাদেশের প্রথম নারী সাপ্তাহিক পত্রিকা

বাংলাদেশে হাসিনার গদি রক্ষা করলেও ভারতে সোনিয়া নিজের গদিই হারাল

বিশ্বের সর্বৃহৎ গনতান্ত্রিক দেশ এবং বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় ও গুরুত্বপূর্ন প্রতিবেশী রাষ্ট্র ভারতের একমাসব্যাপী ১৬তম লোকসভা নির্বাচনের পর ১৬ মে

No comments

Write a comment
No Comments Yet! You can be first to comment this post!

Write a Comment