অস্ট্রেলিয়া যুবলীগ আয়োজিত ইফতার ও দোয়া মাহফিল

অস্ট্রেলিয়া যুবলীগ আয়োজিত ইফতার ও দোয়া মাহফিল

বঙ্গবন্ধুর পরিবারের জন্য রহমত ও মাগফেরাত কামনা এবং ইসতিয়াক আহমেদ চৌধুরী অভি’র দ্রুত আরোগ্য কামনা করে সিডনিবাসীর দোয়া

গত ১৮ই জুন, ২০১৭ রবিবার অস্ট্রেলিয়া যুবলীগ আয়োজন করেছিলো ইফতার ও দোয়া মাহফিল। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব ও ১৯৭৫ সালের ১৫ই আগস্টের কালো রাতে নিহত বঙ্গবন্ধুর পরিবারের সব সদস্যদের রূহের মাগফিতার কামনা করে, বাংলাদেশের সব আন্দোলনে আওয়ামী পরিবারের নিহতদের আত্মার শান্তি কামনা করে ও বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় চেয়ারম্যানের সুযোগ্য পুত্র ইসতিয়াক আহমেদ অভি’র দ্রুত আরোগ্য কামনা করে পবিত্র রোযার মাসে আল্লাহর দরবারে হাত তুলে দোয়া করেন সিডনির আওয়ামী পরিবারের সদস্য ও সিডনির বিভিন্ন পেশাজীবিরা। হিন্দু, মুসলমান, বৌদ্ধ, ক্রিস্টান সবাইকে নিয়ে আয়োজিত এই ইফতারে কানায় কানায় পুর্ন হয়ে যায় রকডেলের কস্তুরী রেস্টুরেন্টের হল রুম। পবিত্র কোরআন থেকে তেলওয়াত ও দোয়া পরিচালনা করেন জনাব আবুল কালাম আজাদ খোকন, পর্বটি পরিচালনা করেন ডঃ সাইফুল ইসলাম। ইফতার শেষে আলোচনা সভায় বিভিন্ন ধর্মের পেশাজীবিরা শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন। ইফতার মাহফিলের সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের সিনিয়র সহ-সভাপতি ডাঃ লাভলী রহমান ও পরিচালনা করেন সাধারন সম্পাদক জনাব নোমান শামীম। আরো বক্তব্য রাখেন জনাব আলাউদ্দীন অলোক, জনাব হারুনুর রশীদ, জনাব আনিসুর রহমান, কলামিস্ট ডঃ শাখাওয়াত নয়ন, বীর মুক্তিযোদ্ধা জনাব এনায়েতুর রহিম বেলাল, কলামিস্ট ও ছড়াকার জনাব অজয় দাশগুপ্ত ও ডঃ আব্দুর রাজ্জাক।

আলোচনায় বঙ্গবন্ধু, তাঁর পরিবার, যুবলীগের প্রতিষ্ঠাতা শেখ ফজলুল হক মনির অবদান নিয়ে কথা বলেন আলোচকরা। তারা বলেন শুধু দেশ থেকে সিডনিতে নেতা এলে প্রোগ্রাম করার স্বার্থপরতার লোকদেখানো গোষ্ঠীকেন্দ্রিক অনুষ্ঠান থেকে বের হয়ে অস্ট্রেলিয়া যুবলীগ সমাজের সবস্তরের সবার সাথে ইফতার আয়োজন করে যে সামাজিক দ্বায়িত্ব পালন করলো তা প্রশংসনীয়, কেননা রাজনীতি মানেই হচ্ছে জনগনের হৃদয়ের সাথে সম্পর্ক স্থাপন করা, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবের এই আদর্শ অস্ট্রেলিয়া যুবলীগ ধরে রাখবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন সবাই।

এতো বিশাল আয়োজনের ইফতার ও দোয়া মাহফিলে অস্ট্রেলিয়া যুবলীগের সব স্তরের নেতা-কর্মীরা ব্যাপক পরিশ্রম করে এবং সমগ্র সিডনিবাসীকেে রমজানের পবিত্র মাসে সব রাজনীতির উর্ধে আবার একত্রিত করে তাদের সামাজিক দ্বায়িত্ববোধের উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত স্থাপন করলো। উল্লেখ্য, অস্ট্রেলিয়া যুবলীগের নেতা জনাব অপু সারোয়ার, জনাবা এলিজা টুম্পা, জনাব সাঈফ রানা, জনাব আমিনুল ইসলাম রুবেল, জনাব মহীউদ্দীন মহী, জনাব মেহেদী হাসান শাহীন, জনাব হাফিজুর রহমান, জনাব খালেদ হোসেইন, জনাব হাসনাইন শিমু্ল, জনাব আলী আশরাফ হিমেলের উদ্যোগে যুবলীগের এবারের অনুস্টানটি সিডনির সবাইকে এক সুতোয় গেঁথেছে। আলোচনা অনুষ্ঠান শেষে সবাইকে ডিনারে আপ্যায়ন করা হয়।

  


Tags assigned to this article:
সিডনি

Place your ads here!

Related Articles

Kemone Bolibo Ami

কেমনে বলিব আমি গত বছর ২৪ জুন এক রক্তপাতহীন ক্যু’র মাধ্যমে তত্কালীন নির্বাচিত অষ্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী কেভিন রাডকে সরিয়ে দলের ডেপুটি

২৪ শে ফেব্রুয়ারী সিডনির ইঙ্গেলবার্নে পালিত হবে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস

কবি লিখেছেন ‘যতদূর বাংলা ভাষা, ততদূর এই বাংলাদেশ’ । আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙ্গানো একুশে ফেব্রুয়ারি, আমি কি ভুলিতে পারি! বাংলা

ছেলেবেলার ঈদ, ওয়াসিম খান পলাশ প্যারিস থেকে

সাহিত্যের গভীরতায় আমি যেতে পারিনি কোন দিন। এখনো না। কোন গল্প লিখতে গেলে তালগোল পাকিয়ে ফেলি। কল্পনার প্রখরতা একদকম নেই।

No comments

Write a comment
No Comments Yet! You can be first to comment this post!

Write a Comment